খেলাধুলা

৪৬-এ থেমে গেল সাইমন্ডসের জীবনের ইনিংস

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৯:৪৮, ১৫ মে ২০২২;  আপডেট: ১৯:৫৮, ১৫ মে ২০২২

৪৬-এ থেমে গেল সাইমন্ডসের জীবনের ইনিংস

ক্যারিয়ারের মতো জীবনও অসময়ে ফুরোলো সাইমন্ডসের। ছবি : সংগৃহীত।

ক্রিকেটার হিসেবে মাঠে লম্বা অনেকগুলো ইনিংস খেলেছেন তিনি। কিন্তু মাঠের বাইরে জীবনের ইনিংস থেমে গেল তার মাত্র ৪৬ বছরেই। শনিবার রাতে এক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস।

কুইন্সল্যান্ড পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, সেখানকার স্থানীয় সময় শনিবার রাত ১১টার দিকে তার গাড়িটি রাস্তা থেকে ছিটকে পড়ে। এতে তিনি মারাত্মক আঘাত পান। জরুরি সেবা প্রদানকারী সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে বাঁচানোর সব চেষ্টাই করেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাকে বাঁচানো যায়নি। ফরেনসিক ক্র্যাশ ইউনিট ঘটনাটি তদন্ত করছে। ঘটনার সময় সাইমন্ডস নিজেই গাড়িটি চালাচ্ছিলেন এবং গাড়িতে তিনি একাই ছিলেন।

সাইমন্ডসের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। শোক জানিয়েছেন তার সতীর্থসহ বিভিন্ন দেশের ক্রিকেটাররাও। রবিবার চট্টগ্রামে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে প্রথম টেস্ট শুরুর আগে তার স্মরণে একমিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

সাইমন্ডস ২০০৩ ও ২০০৭ বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সদস্য ছিলেন। ১৯৯৮ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার হয়ে তিনি ২৬টি টেস্ট, ১৯৮টি ওয়ানডে এবং ১৪টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। এই অলরাউন্ডার আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তিন ফরম্যাটে মোট ১৬৫ উইকেট নিয়েছেন।

সাইমন্ডসের ক্রিকেটজীবন হয়তো আরেকটু সমৃদ্ধ হতে পারতো। ২০০৮ সালে এক ম্যাচে ভারতীয় ক্রিকেটার হরভজন সিংয়ের সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা হয়। রিকি পন্টিং ওই সময় ম্যাচ কর্মকর্তাদের কাছে সাইমন্ডসকে নিয়ে হরভজন সিংয়ের বর্ণবাদী মন্তব্যের অভিযোগ করেন। ওই ঘটনার পর অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন। পরে সাইমন্ডস অ্যালকোহলে আসক্ত হন। এরপর অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট বোর্ড তার সঙ্গে চুক্তি বাতিল করে। বর্ষীয়ান অনেক ক্রিকেটার মনে করেন, মাঠে ও মাঠের বাইরে উগ্রতার জন্য বিতর্কিত সাইমন্ডসের ক্যারিয়ার হরভজনের সঙ্গে ওই ঘটনার পরই আসলে শেষ হয়ে যায়।

সূত্র : বিবিসি ও হিন্দুস্তান টাইমস।