শিল্প-সাহিত্য-বিনোদন

প্রথম ভারতীয় লেখক হিসেবে আন্তর্জাতিক বুকার পেলেন গীতাঞ্জলি শ্রী

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৫:০২, ২৭ মে ২০২২;  আপডেট: ১৫:৩২, ২৭ মে ২০২২

প্রথম ভারতীয় লেখক হিসেবে আন্তর্জাতিক বুকার পেলেন গীতাঞ্জলি শ্রী

হিন্দি ভাষায় লেখা `রেত সমাধি` প্রকাশিত হয় ২০১৮ সালে। পরে এর ইংরেজি অনুবাদ `টুম্ব অব স্যান্ড` যুক্তরাজ্য থেকে প্রকাশিত হয়।

আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার পেয়েছেন ভারতীয় লেখক গীতাঞ্জলি শ্রী। হিন্দি ভাষায় লেখা তার 'রেত সমাধি' উপন্যাসের ইংরেজি অনুবাদ 'টুম্ব অব স্যান্ড'-এর জন্য তিনি এ পুরস্কার পেলেন। হিন্দি সাহিত্যের কোনও উপন্যাস এই প্রথম আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার পেলো। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা বিবিসিতে আজ শুক্রবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

'রেত সমাধি' উপন্যাসটি হিন্দি থেকে ইংরেজিতে অনুবাদ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের অনুবাদক ডেইজি রকওয়েল। উপন্যাসটি লেখা হয়েছে ১৯৪৭ সালের দেশভাগের প্রেক্ষাপটে। বইয়ের মূল চরিত্র ৮০ বছর বয়সী এক নারী। উপন্যাসের মূল উপজীব্য ওই নারীর স্বামীর মৃত্যু এবং দেশভাগের প্রেক্ষাপটে তার জীবন।

পুরস্কার পাওয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় গীতাঞ্জলি শ্রী বলেন, 'হিন্দি সাহিত্যের কোনও বই এই প্রথম আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার পাওয়ায় খুব ভালো লাগছে।'

হিন্দি ভাষায় লেখা 'রেত সমাধি' প্রকাশিত হয় ২০১৮ সালে। পরে এর ইংরেজি অনুবাদ 'টুম্ব অব স্যান্ড' যুক্তরাজ্য থেকে প্রকাশিত হয়।

৬৪ বছর বয়সী গীতাঞ্জলি শ্রীর জন্ম ভারতের উত্তর প্রদেশে। তিনি তিনটি উপন্যাস লিখেছেন। তার লেখা গল্প নিয়ে বেশ কয়েকটি গল্পসমগ্র প্রকাশিত হয়েছে।

প্রতিবছর আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার দেওয়া হয়। যুক্তরাজ্য বা আয়ারল্যান্ড থেকে প্রকাশিত ইংরেজিতে লেখা বা অনূদিত উপন্যাস এই পুরস্কারের জন্য বিবেচিত হয়।